“বুয়েট ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম হওয়া আমার  জীবনের স্মরণীয় ঘটনা”

অপরিচিত | মে ২৪, ২০১৮
“বুয়েট ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম হওয়া আমার  জীবনের স্মরণীয় ঘটনা”

“বুয়েট ভর্তি পরীক্ষায় প্রথম হওয়া আমার  জীবনের স্মরণীয় ঘটনা”

কৌশিক রায় (ভদ্র), দিনাজপুর সরকারি কলেজ

BUET ভর্তি পরীক্ষা - ২০১৭ : ১ম

DU_KA ভর্তি পরীক্ষা - ২০১৭ : ৬ষ্ঠ

দেশ ভাবনা: আমাদের দেশ অনেক সমৃদ্ধিশালী। দেশের উন্নতির জন্য চাই মানুষের একটু আন্তরিক প্রচেষ্টা। বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশ সম্মানিত স্থানে থাকুক- এই আমার প্রত্যাশা।

যেভাবে পড়াশোনা করতাম: আমার পড়াশোনার তেমন কোনো রুটিন ছিল না। পড়তে ইচ্ছে হলে পড়তাম। দিনে হয়ত ৪-৫ ঘন্টা পড়তাম। বেশির ভাগ সময়েই পড়ার টার্গেট পূরণ হত না। তবে যতটুকু সময় পড়তাম, মনোযোগ দিয়ে পড়তাম।

ভর্তি পরীক্ষার জন্য শিক্ষার্থীদের যেভাবে প্রস্তুতি নেয়া উচিত: আসলে সবারই উচিত সর্বপ্রথম Text Book  গুলো ভালো করে আয়ত্ত করা। এরপর সময় পেলে লেকচার শিট বা এ জাতীয় অতিরিক্ত বই। আর পরীক্ষার ক্ষেত্রে নিয়মিত হতে হবে। রেজাল্ট যেরকমই হোক না কেন হতাশ না হয়ে চেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে।

 

উদ্ভাস: ভালো মানুষ আর একজন ভালো প্রকৌশলী-এই দুইয়ের সংমিশ্রণ কিভাবে সম্ভব বলে মনে কর?

ভদ্র: সবার আগে একজন ভালো মানুষ হওয়ার চেষ্টা করা উচিত। আর একজন ভালো মানুষ নিশ্চই তার পেশাজীবনে মনোযোগী হবে।

উদ্ভাস: কিভাবে পড়াশোনা করতে?

ভদ্র: পড়াশোনাটা ঠিক সেভাবে রুটিন ধরে করা হয় নি। দিনে ৪-৫ ঘন্টা মনোযোগ দিয়ে পড়তাম।

উদ্ভাস: তোমার কাছে পৃথিবীতে আগমনের হেতু কি?

ভদ্র: একজন ভালো মানুষ হওয়া আর সৃষ্টিকর্তার গুণকীর্তণ করা।

উদ্ভাস: স্বপ্ন আর বাস্তবতার মধ্যে কিভাবে সমন্বয় কর?

ভদ্র: স্বপ্ন আর বাস্তবতা অধিকাংশ ক্ষেত্রেই  মেলে না। তবে যতটুকু পাই ততটুকু নিয়ে সন্তুষ্ট থাকার চেষ্টা করি।

উদ্ভাস: বাংলাদেশে জন্মানোর ইতিবাচক দিকগুলো নিয়ে কি কখনো চিন্তা করেছ, করলে সেই বিষয়গুলো কি কি?

ভদ্র: বাংলাদেশে জন্মানোর পর আমরা আমাদের পরিচয় পেয়েছি। নিজেদের উন্নত করেছি।

উদ্ভাস: শেষ কি বই পড়েছ?

ভদ্র: কম্পিউটার প্রোগ্রামিং; লেখক: তামিম শাহরিয়ার সুবিন।

উদ্ভাস: আমাদের দেশের সবচেয়ে বড় সমস্যা তোমার কোনটি মনে হয়, সেক্ষেত্রে আমাদের করণীয় কী?

ভদ্র: দুর্নীতি। লোকজনকে অল্পতেই সন্তুষ্ট থাকা শিখতে হবে।

উদ্ভাস: জীবনে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ কী মনে হয়েছে তোমার?

ভদ্র: মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার সাতদিন পূর্বে থেকে মেডিকেল প্রিপারেশন নেওয়া এবং সে সময়  Biology বই Complete     করা।

উদ্ভাস: প্যাশন বিষয়টাকে তুমি কিভাবে দেখ? তোমার পড়াশোনা সেক্ষেত্রে কতটুকু ক্ষতিগ্রস্থ হবে বা উপকারে আসবে?

ভদ্র: প্যাশন আসলেই অনেক দরকারি। প্যাশন ছাড়া কোনো বিষয়ে উন্নতি করা অনেক কঠিন।

উদ্ভাস: পেশা জীবনে তোমার স্বপ্নগুলো কিভাবে পূরণ করবে?

ভদ্র: কঠোর পরিশ্রম করার চেষ্টা করব। আর স্বপ্ন পূরণ তো ভগবানের হাতে।

উদ্ভাস: ভার্চুয়াল ওয়ার্ল্ড সম্পর্কে তোমার অবজারভেশন কি?

ভদ্র: ভার্চুয়াল ওয়ার্ল্ড আমাদের অবিচ্ছেদ্য অংশ কিন্তু তা অবশ্যই সীমাবদ্ধ রাখতে হবে।

উদ্ভাস: বুয়েটে না হলে কোন বিষয়ে বা কোথায় পড়াশোনা করতে চাইতে এবং কেন?

ভদ্র: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এঊই-তে। কারণ, জিন প্রকৌশল সর্ম্পকে আগ্রহ আছে।

উদ্ভাস: দুই লাইনে তোমার সম্পর্কে বলতে বললে কি বলবে?

ভদ্র: সহজ, সরল, বাচ্চা স্বভাবের একটা ছেলে। খুবই মিশুক। 

উদ্ভাস: প্রযুক্তির উৎকর্ষের সাথে সাথে আমাদের আবেগ অনুভূতির জায়গা কতটা ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে বলে মনে কর?

ভদ্র: প্রযুক্তি অনেক ক্ষেত্রেই আমাদের আবেগ কেড়ে নিচ্ছে।

উদ্ভাস: তোমার কাছে পৃথিবীতে আগমরে হেতু কি?

ভদ্র: একজন ভালো মানুষ হওয়া আর সৃষ্টিকর্তার গুণ কীর্তন করা।

উদ্ভাস: বাংলাদেশে জন্মানোর ইতিবাচক দিকগুলো নিয়ে কি কখনো চিন্তা করেছ, করলে সেই বিষয়গুলো কি কি?

ভদ্র: বাংলাদেশে জন্মানোর পর আমরা আমাদের পরিচয় পেয়েছি, নিজেদের উন্নত করেছি।

উদ্ভাস: শেষ কি বই পড়েছ?

ভদ্র: কম্পিউটার প্রোগ্রামিং।

উদ্ভাস: আমাদের দেশের সবচেয়ে বড় সমস্যা তোমার কোনটি মনে হয়, সেক্ষেত্রে আমাদের করণীয় কী?

ভদ্র: দুর্নীতি। লোকজনকে অল্পতেই সন্তুষ্ট থাকা শিখতে হবে।

উদ্ভাস: টাইম মেশিন দিয়ে অতীতে ফিরে যাওয়ার সুযোগ পেলে কোন মুহূর্ত গুলোতে ফিরে যাবে?

ভদ্র: ভর্তি পরীক্ষার রেজাল্টের পরবর্তী মুহূর্তগুলোতে, ছোটবেলার সময়গুলোতে।

উদ্ভাস: কেন প্রকৌশলী হতে চাও?

ভদ্র: সেরকম কোনো কারণ নেই। স্কুলে থাকতেই বুয়েটের প্রতি একটা ভালোলাগা ছিল।

উদ্ভাস: নিজের দুর্বলতাগুলো নিয়ে কিভাবে কাজ কর?

ভদ্র: বেশি বেশি করে সময় দেই নিজের দুর্বলতার উপর।

উদ্ভাস: দেশের প্রতি ভালোবাসা থেকে করেছ এমন কোন কাজ?

ভদ্র: দেশকে ভালোবাসি, দেশের জন্য অনেক কিছু করতে চাই। রাষ্ট্রীয় সম্পত্তির রক্ষনাবেক্ষণে সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি।

উদ্ভাস: যে কাজটি সময়/সুযোগ মিললেই করতে চাও?

ভদ্র: ঘুমানো।

উদ্ভাস: ভালোলাগা অথবা দায়বদ্ধতা কোনটাকে বেশী প্রাধান্য দাও?

ভদ্র: এটা নির্ভর করে পরিস্থিতির উপর। তবে ‘ভালোলাগা’-কেই প্রাধান্য দিই অধিকাংশ সময়।

উদ্ভাস: ক্ষমতা, অর্থ, সম্মান -এই তিনের মধ্যে কোন বিষয়টি সবচেয়ে বেশী তাড়িত করে?

ভদ্র: অবশ্যই সম্মান।

উদ্ভাস: তোমার দেখা সুন্দর জায়গা কিংবা যেখানে একবার হলেও যেতে চাও এবং কেন?

ভদ্র: জার্মানি, মহাবিজ্ঞানী আইনস্টাইনের জন্মস্থান।